জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

প্রকাশ: April 21, 2015
urls

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় বাংলাদেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে অন্যতম। এটি বাংলাদেশের একমাত্র পূর্নাঙ্গ আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়।

প্রতিষ্ঠাকালঃ
১৯৭০ সালে তৎকালীন পাকিস্তান সরকার কর্তৃক ‘জাহাঙ্গীরনগর মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়’ অধ্যাদেশের মাধ্যমে এই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রাথমিকভাবে দুই বৎসর এটি একটি প্রকল্প হিসাবে পরিচালিত হয়। ১৯৭০ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর তারিখে অধ্যাপক ডঃ মফিজউদ্দিন আহমদ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ১ম উপাচার্য হিসাবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন। অর্থনীতি, ভূ-গোল, গণিত ও পরিসংখ্যান এই চারটি বিভাগে ১৫০ জন ছাত্র-ছাত্রী নিয়ে এই বিশ্ববিদ্যালয় যাত্রা শুরু করে। ১৯৭০ এর ১২ জানুয়ারী বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন চ্যান্সেলর রিয়ার এডমিরাল এস.এম আহসান কর্তৃক বিশ্ববিদ্যালয়ের আনুষ্ঠানিক উদ্ধোধন হলেও প্রকৃত পক্ষে এর যাত্রা শুরু হয় এক বৎসর পরে ‌১৯৭১ এর ১২ জানুয়ারী। পরবর্তীতে বাংলাদেশের স্বাধীনতা লাভের পর ১৯৭৩ সালের ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাদেশ’ অনুসারে বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন নামকরণ করা হয় ‘জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়’।

ক্যাম্পাসের অবস্থান ও প্রকৃতিঃ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস রাজধানী ঢাকা থেকে ৩২ কি:মি: দূরে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের পশ্চিম পার্শ্বে প্রায় ৭৫০ একর জায়গা জুড়ে বিস্তৃত। এই বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত বাংলাদেশ লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (বিপিএটিসি) এবং সাভার সেনানিবাস। এর ১কি:মি: উত্তরে রয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় স্মৃতিসৌধ। এই বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস অন্যন্য প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে পরিপূর্ণ। ঘন সবুজ গাছ পালায় আবৃত বন্ধুর ও সমতল ভূমিতে স্থাপিত বিশ্ববিদ্যালয়ের লাল ইটের অবকাঠামোগুলো সহজেই দৃষ্টি কেড়ে নেয়। এই ক্যাম্পাসে রয়েছে অনেকগুলো ছোট বড় লেক যেখানে প্রতিবছর শীতের সময় অসংখ্য অতিথি পাখির সমাগম ঘটে। লাল, সাদা ফুটন্ত পদ্মফুলের বিচিত্র সৌন্দর্য্য আর অতিথি পাখির কলরব এই ক্যাম্পাসকে দেশের অন্যতম আকর্ষনীয় একটি পর্যটন এলাকায় পরিনত করেছে।

চ্যান্সেলরঃ
বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মাননীয় রাষ্ট্রপতি মোঃ জিল্লুর রহমান।

ভাইস চ্যান্সেলরঃ
বর্তমানে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর হিসাবে নিযুক্ত আছেন অধ্যাপক শরীফ এনামুল কবির।

অনুষদ ও বিভাগসমূহঃ
বর্তমানে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫টি অনুষদের অধীনে ৩০ টি বিভাগে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে শিক্ষা কার্যক্রম চালু আছে। প্রতি বছর ভর্তি পরীক্ষার মাধ্যমে এসব বিভাগে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি করা হয়।

অনুষদ ভিত্তিক বিভাগগুলো হচ্ছেঃ
কলা ও মানবিক অনুষদ: ৭ টি বিভাগ
• বাংলা
• ইংরেজী
• ইতিহাস
• দর্শন
• প্রত্নতত্ত্ব
• নাটক ও নাট্যতত্ত্ব
• আন্তর্জাতিক সম্পর্ক

জীব বিদ্যা অনুষদ: ৬টি বিভাগ
• উদ্ভিদ বিদ্যা
• প্রাণীবিদ্যা
• ফার্মেসী
• প্রাণ রসায়ন ও জৈবানু বিজ্ঞান
• অনুজীব বিদ্যা
• জীব প্রকৌশল ও জৈব প্রযুক্তি

গণিত ও পদার্থ বিজ্ঞান অনুষদ: ৭টি বিভাগ
• পদার্থ বিদ্যা
• পরিসংখ্যান
• রসায়ন
• গণিত
• ভূ-তত্ত্ব
• পরিবেশ বিজ্ঞান
• কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ: ৬টি বিভাগ
• অর্থনীতি
• নৃ-তত্ত্ব
• সরকার ও রাজনীতি
• ভূ-গোল ও পরিবেশ বিদ্যা
• নগর ও অঞ্চল পরিকল্পনা
• লোক প্রশাসন

বাণিজ্য অনুষদ: ৪টি বিভাগ
• একাউন্টিং এন্ড ইনফর্মেশন সিস্টেমস
• ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং
• মার্কেটিং
• ম্যানেজমেন্ট স্টাডিজ

ইন্সটিটিউট সমূহঃ
বিশেষায়িত গবেষণা ও প্রশিক্ষণের জন্য জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ৪টি ইন্সটিটিউট রয়েছে। এগুলো হচ্ছে-
• ইন্সটিটিউট অব বিজনেস এডমিনিষ্ট্রেশন
• ইন্সটিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি
• ইন্সটিটিউট অব রিমোট সেন্সিং
• ল্যাঙ্গুয়েজ সেন্টার

ভর্তি প্রক্রিয়াঃ
সাধারণত আগস্ট-সেপ্টেম্বর সময়ে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি পত্রিকায় ও ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়।

ইউনিট সমূহ:
• ক ইউনিট: গণিত ও পদার্থ বিদ্যা অনুষদের বিষয়সমূহ।
• খ ইউনিট: সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের বিষয়সমূহ।
• গ ইউনিট: কলা অনুষদের বিষয়সমূহ।
• ঘ ইউনিট: জীববিদ্যা অনুষদের বিষয়সমূহ।
• ঙ ইউনিট: বাণিজ্য অনুষদের বিষয়সমূহ
• চ ইউনিট: ইন্সটিটিউট অভ বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন
• ছ ইউনিট: আই আই টি
• জ ইউনিট: আইন অনুষদের বিষয়সমূহ

ভর্তির যোগ্যতাঃ
এই বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য শিক্ষার্থীদের এস.এস.সি ও এইচ.এস.সি-তে সর্বমোট ন্যূনতম জিপিএ ৭.৫ (৪র্থ বিষয়সহ) পেতে হবে। তবে পৃথকভাবে অবশ্যই ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে।
ইংরেজী মাধ্যমের পরীক্ষার্থীদের অত্যন্ত ৫টি বিষয় নিয়ে ‘ও’ লেভেল উত্তীর্ণ হতে হবে এবং অত্যন্ত ৩ টি বিষয়ে ‘বি’ গ্রেড থাকতে হবে। ‘এ’ লেভেলে অন্তত ২টি বিষয়ে ‘সি’ গ্রেড পেতে হবে।

ভর্তি ফরম প্রাপ্তি ও জমাদানঃ
বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি ফরম অগ্রনী ব্যাংক এর নিন্মোক্ত শাখাসমূহে কিনতে পাওয়া যায়-
• জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস শাখা
• ফার্মগেট শাখা
• শাহবাগ, জাতীয় জাদুঘর শাখা
• ফার্মগেট শাখা

ভর্তি ফরমের মূল্য ‘ক’ থেকে ‘ঙ’ ইউনিট পর্যন্ত ৩৩০ টাকা এবং ‘চ’ থেকে ‘ঞ’ ইউনিট পর্যন্ত ২৭৫ টাকা।
পরীক্ষার্থী নিজ হাতে যথাযথভাবে ফরম ফিল আপ করে ঘোষিত সময়ের মধ্যে অনুষদসমূহের ডীন অফিসে জমা দিতে হয়।
বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকেও আবেদন ফরম ডাউনলোড করা যায়। পরবর্তীতে পত্রিকায় ও ওয়েবসাইটে ফলাফল প্রকাশের পর প্রথমে মেধা তালিকা থেকে এবং পরবর্তীতে অপেক্ষমান তালিকা থেকে মৌখিক সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি করা যায়।

আবাসিক হলঃ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে ৭টি ছাত্র হল এবং ৫টি ছাত্রী হল রয়েছে।

ছাত্র হলগুলো হচ্ছে
• আল বেরুনী হল
• মীর মোশাররফ হোসেন হল
• আ.ফ.ম কামালউদ্দিন হল
• শহীদ সালাম-বরকত হল
• মাওলানা ভাসানী হল
• বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল
• রফিক- জব্বার হল

ছাত্রী হলগুলো হচ্ছে
• নওয়াব ফয়জুন্নেছা হল
• ফজিলাতুনন্নেসা হল
• জাহানারা ইমাম হল
• প্রীতিলতা হল
• বেগম খালেদা জিয়া হল
• শেখ হাসিনা হল

আবাসিক হলগুলোতে ১ শয্যা, ২ শয্যা ও ৪ শয্যা বিশিষ্ট কক্ষ রয়েছে। কক্ষগুলো প্রশস্থ ও প্রয়োজনীর উপকরণ যেমন- বিছানা, পড়ার টেবিল, চেয়ার ইত্যাদিতে সজ্জিত। প্রতিটি হলেই পৃথক পৃথক ডাইনিং রুম, মসজিদ, ক্যান্টিন, কমন রুম ও গেস্টরুম রয়েছে। প্রতিটি হলের দায়িত্বে একজন প্রাধ্যক্ষ ও একাধিক সুপার ও ওয়ার্ডেন রয়েছেন।

কেন্দ্রীয় লাইব্রেরীঃ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের চমৎকার কেন্দ্রূীয় লাইব্রেরীটি একাডেমিক ভবন ও ছাত্র হলগুলোর মধ্যবর্তী স্থানে অবস্থিত। এই লাইব্ররীতে ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক ও গবেষকদের জন্য প্রায় ৯৫০০০ বই রয়েছে।

কেন্দ্রীয় ক্যাফেটেরিয়াঃ
বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি মানসম্পন্ন কেন্দ্রূীয় ক্যাফেটেরিয়া রয়েছে। যেখানে সকালের নাস্তা ও দুপুরের খাবার পাওয়া যায়। এখানে একসাথে প্রায় ৩০০ জন খাওয়া-দাওয়া করতে পারে। এখানে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে কুপনের মাধ্যমে খাবার সংগ্রহ করতে হয়।

মুক্তমঞ্চঃ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি অনন্য স্থাপনা। বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাফেটেরিয়ার পাশে অত্যন্ত মনোরম পরিবেশে গ্রীক স্থাপত্য শৈলীতে নির্মিত এই মুক্ত মঞ্চে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান যেমন- নাটক, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, কনসার্ট ইত্যাদি অনুষ্ঠিত হয়। এই মুক্তমঞ্চের দর্শক গ্যালারীতে একসাথে প্রায় ৭০০০ দর্শক অনুষ্ঠান উপভোগ করতে পারে।

জহির রায়হান মিলনায়তনঃ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মিলনায়তনটি শহীদ বুদ্ধিজীবী জহির রায়হানের নামে নামকরণ করা হয়েছে। কেন্দ্রীয়ভাবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা সমৃদ্ধ এই মিলনায়তনে প্রায় ১০০০ দর্শকের বসার ব্যবস্থা রয়েছে। এখানে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সেমিনার, চলচ্চিত্র প্রদর্শনী ইত্যাদির আয়োজন করা হয়ে থাকে।

কেন্দ্রীয় খেলার মাঠঃ
এই বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন একটি খেলার মাঠ রয়েছে যেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের আভ্যন্তরীন ক্রীড়া প্রতিযোগীতা ছাড়াও আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় ফুটবল ও ক্রিকেট প্রতিযোগিতা, ১ম বিভাগ ক্রিকেট লীগ ইত্যাদি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।

অন্যান্য স্থাপনাঃ
এই বিশ্ববিদ্যালয়ে এছাড়াও একটি কেন্দ্রীয় মসজিদ, একটি সুইমিংপুল, একটি ইনডোর স্টেডিয়াম কাম জিমনেসিয়াম এবং একটি মেডিক্যাল সেন্টার রয়েছে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথিতযশা ব্যক্তিবর্গঃ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় জাতিকে বহু প্রথিতযশা ব্যক্তিত্ব উপহার দিয়েছে। এদের অনেকেই আজ জীবিত নেই। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের খ্যাতিমান জীবিত ও মৃত ব্যক্তিবর্গ হলেন:
• বিখ্যাত নাট্যকার প্রয়াত প্রফেসর সেলিম আল-দীন
• খ্যাতিমান অভিনেতা প্রয়াত হুমায়ুন ফরিদী
• প্রখ্যাত অর্থনীতিবিদ প্রফেসর আনু মুহাম্মদ
• দেশের অন্যতম প্রধান কবি মুহাম্মদ রফিক
• শক্তিশালী টিভি ও মঞ্চ অভিনেতা শহীদুজ্জামান সেলিম
• জাতীয় ক্রিকেট দলের বর্তমান অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম
• জাতীয় ক্রিকেট দলের শক্তিমান খেলোয়াড় মাশরাফি বিন মুর্তজা।

বিবিধঃ
• রাজধানী ঢাকা থেকে যে কোন যানবাহনে ৪৫ মিনিটের ভেতরেই জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে পৌঁছানো সম্ভব।
• এই বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে কোন ছাত্র সংসদ নেই।
• এই বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বশেষ সংযোজন উইক এন্ড এম.বি.এ প্রোগ্রাম।
• যে কোন তথ্যের জন্য এই বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করা যেতে পারে। ওয়েবসাইট- www.juniv.edu

বিবিধ সংগঠনঃ
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন সেবামূলক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কাজ করে। এছাড়া রয়েছে বিভিন্ন জেলার ছাত্র কল্যাণ সমিতি।
• জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যিলয় সায়েন্স ক্লাব
• জাহাঙ্গীরনগর অ্যাডভেঞ্চার ক্লাব
• লিও ক্লাব অব লিবার্টি, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়।
• রোট্যারাক্ট ক্লাব অব জাহাঙ্গীরনগর।
• বাঁধন
• জাহাঙ্গীরনগর প্রোগ্রামারস ক্লাব
• এক্সপ্লোরার্স
• লিও ক্লাব
• পিডিএফ
• কাশফুল
• বন্ধুসভা
• স্বজন সমাবেশ
• যাযাদি ফ্রেন্ডস ফোরাম
• জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি।

You must be logged in to post a comment Login

মন্তব্য করুন