দক্ষিণ এশিয়ার ক্যারাভান সরাইয়ের নমুনা ছোট কাটরা

প্রকাশ: May 27, 2015
Choto katra..

ছোট কাটরা বড় কাটরার প্রায় ১৮৩ মিটার পূর্বে হাকিম হাবিবুর রহমান লেনে বুড়িগঙ্গার তীরে পুরাতন ঢাকায় অবস্থিত। ছোট কাটরা ভবনটি আয়তাকৃতির এবং এর বাইরে থেকে পরিমাপ ১০১.২০ মি ঊ ৯২.০৫ মি এবং ভেতরে ৮১.০৭ মি ঊ ৬৯.১৯ মি। বাইরের প্রাচীর ০.৯১ মি থেকে ১ মি পুরু এবং এর প্রতিরক্ষা বুরুজের দেয়াল যেখানে সব চেয়ে পুরু সেখানে ১.২২ মিটার। এটি বড় কাটরার পরিকল্পনা অনুসারে তৈরী তবে আকৃতিতে অপেক্ষাকৃত ছোট।

choto katra.

ছোট কাটরার সাথে বিবি চম্পার স্মৃতিসৌধ অবস্থিত ছিল। এক গম্বুজ, চার কোণা, প্রতিপাশে ২৪ ফুট দীর্ঘ ছিল স্মৃতিসৌধটি। বিবি চম্পা কে ছিলেন তা সঠিক জানা যায় নি। তবে কারো মতে তিনি শায়েস্তা খাঁর মেয়ে।

ছোট কাটরা ইমারতটি দক্ষিণ এশিয়ার ক্যারাভান সরাই-এর নমুনায় নির্মিত ও রাজকীয় মুগল কাটরার অনুরূপ। এতে রয়েছে উত্তর ও দক্ষিণে দুটি প্রবেশপথ দক্ষিণের প্রবেশপথ প্রধান। কাটরার জানালার খিলানসমূহ তিনভাঁজ বিশিষ্ট। মিনারগুলি মজবুত এবং অন্যান্য মুগল মিনারের তুলনায় মোটা ও প্যারাপেটবিহীন। প্রাসাদের সিঁড়ি ও মেঝে কাঠ দিয়ে তৈরি। কাঠের সিঁড়িগুলি ছিল বেশ চওড়া। একতলায় একটি কক্ষকে বিভক্ত করা হয়েছে আড়াআড়িভাবে। একটি লম্বা ও অপরটি চওড়া এ দুভাগে বিভক্ত করা হয়েছে। ভল্টেড কক্ষসমূহের প্রবেশদ্বারে বড় খিলান যুক্ত আছে। ভল্টেড কক্ষসমূহ মাটির নিচে থাকায় তা ঠান্ডা ও অন্ধকার। কক্ষগুলি অলংকরণবিহীন সাদামাটা। খুবসম্ভবত তা তাহখানার কাজ করেছিল। ভল্টসমূহ মোঘল স্থাপত্যের নমুনা হিসেবে অতি সুন্দর। ছোট কাটরা অপেক্ষাকৃত ছোট হলেও স্থাপত্য ও অলংকরণাদির বৈশিষ্ট্য বিচারে এটি বড় কাটরার সঙ্গে সাদৃশ্যপূর্ণ। বহুবার সংস্কার করার ফলে প্রবেশপথ দুটির মূল বৈশিষ্ট্যে পরিবর্তন দেখা দিলেও এ দুটি এখনও বর্তমান। উন্মুক্ত প্রাঙ্গণ বেষ্টিত চারপাশের ভবনাদি বহুবার নবায়ন, পুনর্নির্মাণ ও সংস্কার করা হয়েছে। আদি ভবনে অনেক আধুনিক সম্প্রসারণ হয়েছে। নদীর দিকে তিনতলা বিশিষ্ট প্রবেশপথে কিছু ঔপনিবেশিক বৈশিষ্ট্য লক্ষণীয়। ত্রয়ী জানালায় ও সুউচ্চ পার্শ্ব বুরুজে পরবর্তী সংস্কারের সময় উপনিবেশিক প্রভাবের প্রতিফলন ঘটেছে।

choto katra

শায়েস্তা খানের আমলে ১৬৬৪ সালে ছোট কাটরা নির্মিত হয়েছিল সরাইখানা বা প্রশাসনিক কাজে ব্যবহারের জন্য। কোম্পানি আমলে ১৮১৬ সালে মিশনারি লিওনার্দো ছোট কাটরায় খুলেছিলেন ঢাকার প্রথম ইংরাজি স্কুল। ১৮৫৭ সালে, এখানে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছিল ঢাকার প্রথম নরমাল স্কুল। উনিশ শতকের শেষ দিকে অথবা বিশ শতকের প্রথম দিকে ছোট কাটরা ছিল নবাব পরিবারের দখলে এবং এখানে তখন ‘কয়লা ও চুণার কারখানার কাজ’ চলত।

বিবেচনাহীন পরিবর্তন ও অনাকাঙ্ক্ষিত নবায়নের ফলে ছোট কাটরার স্থায়িত্ব বেড়েছে কিন্তু আদি অবয়ব বিলুপ্ত হয়ে গেছে। ঢাকায় বিদ্যমান দুটি কাটরা প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ কর্তৃক সংরক্ষিত ইমারত নয়। এ ধরনের স্থাপত্য ভবনের মাত্র দুটি বিরল নমুনা বর্তমানে সম্পূর্ণ ধ্বংসের মুখে উপনীত।

You must be logged in to post a comment Login

মন্তব্য করুন