সূচের ফোঁড়ে স্বপ্ন: মিরপুর বেনারশী পল্লী

প্রকাশ: May 16, 2015
banaras

১৯৯৫ সালে মিরপুর বেনারশী পল্লী প্রতিষ্ঠা হলেও ধারণা করা হয় ১৯৯০ সালে এখানে হাতে গোনা দু তিনটি গদিঘর ছিল। এই গদিঘর হল বেনারশী শাড়ি তৈরীর কারখানা এবং খুচরা ও পাইকারী বিক্রয় কেন্দ্র। এই দু-তিনটি গদিঘর সময়ের পরিক্রমায় চাহিদার ভিত্তিতে আরও কিছু গদিঘর প্রতিষ্ঠিত হয়। ঐতিহ্যবাহী এবং পুরনো গদিঘরগুলোর সাথে নতুন কিছু ব্যবসায়ীরা এসে যোগ হলে এলাকাটি একটি পরিপূর্ণ বেনারশী পল্লীতে পরিণত হয়। পরবর্তীতে কারখানাগুলো স্থানান্তর করে গদিঘরগুলোকে শোরুম হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করা হয়। এরপর থেকেই বেনারশী পল্লীর সুনাম ও শাড়ির চাহিদা বৃদ্ধি পায়। দেশ-বিদেশে রপ্তানী করে বেনারশী পল্লী বেশ ভাল পরিচিতি লাভ করে। বর্তমানে বেনারশী পল্লীতে ১০৮টি শোরুম আছে। বাংলাদেশ তথা ঢাকা শহরে বেনারশী পল্লী একটাই। আর সেটি মিরপুরে। অবস্থান সেকশন-১০, ব্লক-এ, লেন ১-৪, অরিজিনাল-১০, মিরপুর, ঢাকা-১২২১। সাধারণত সকাল ১০.০০ টা –রাত ৮.৩০ মিনিট পর্যন্ত শোরুমগুলো খোলা থাকে। রবিবার পূর্ণদিবস এবং সোমবার দুপুর ১২.০০ টা পর্যন্ত শোরুম বন্ধ থাকে।

সাধারনত কোন শ্রেণীর লোক বেশী আসে
সাধারনত সব শ্রেণীর বা পেশার লোক এখানে কেনাকাটা করতে আসেন। তবে উচ্চবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতার উপস্থিতি বেশী । নিন্মমধ্যবিত্ত শ্রেনী ও এর নিচের শ্রেনীর ক্রেতারা বিয়ে অথবা বিশেষ উৎসব ও উপহার হিসেবে শাড়ি ক্রয় করতে আসেন। এছাড়া মধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্তরা প্রতি সপ্তাহে অথবা মাসেই এখানে আসেন নতুন নতুন শাড়ি ক্রয় করতে।
কি ধরনের শাড়ি পাওয়া যায়
P3_Benarosi-sari
বেনারশী পল্লী একসময় শুধুমাত্র বেনারশী শাড়ির জন্যই বিখ্যাত ছিল। গত বছর কয়েক ধরে মিরপুর বেনারশী পল্লিতে বেনারশী শাড়ি ছাড়াও অন্যান্য সব ধরনের শাড়ি পাওয়া যায়।
যেমন-
• টাঙ্গাইল তাঁতের শাড়ি (কটন)।
• টাঙ্গাঈল হাফ সিল্ক।
• রাজশাহী সিল্ক।
• ধুপিয়ান ।
• ঢাকাই মসলিন ।
• কাতান ।
• কোটা শাড়ি ।
• ব্রোকেট শাড়ি।
• জামদানী শাড়ি।
• জর্জেট শাড়ি ইত্যাদি।
এ ছাড়াও আরো নতুন নতুন কালেকশন পল্লীতে তৈরী হচ্ছে।

স্পেশাল অর্ডার
মিরপুর বেনারশী পল্লীতে মোট ১০৮ টি শো-রুম আছে। কিন্তু সবাই অর্ডার সরবরাহ করতে পারে না। শুধু মাত্র প্রতিষ্ঠিত পুরনো । ঐতিহ্যবাহী কয়েকটি প্রতিষ্ঠানেই বিশেষ অর্ডার নেয়া হয়। এ জন্য আপনাকে কমপক্ষে ১ মাস আগে অর্ডার দিতে হবে এবং অগ্রীম ৫০-৬০% টাকা পরিশোধ করতে হবে। আর এই স্পেশাল অর্ডার করতে কত টাকা লাগবে তা আলোচনা সাপেক্ষে নির্ধারন করা হয়।
mirpur-benarashi-palli-online-dhaka-com
আমদানী ও রপ্তানী
মিরপুর বেনারশী পল্লীতে শাড়ি ও শাড়ি তৈরির বিভিন্ন উপকরন ভারত, পাকিস্তান, চায়না ও অন্যান্য দেশ থেকে আমদানী করতে হয়। এ ছাড়া তৈরীকৃত শাড়িগুলো বাংলাদেশের প্রতিটি জেলা সহ ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলংকা, চায়না, আমেরিকা, সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোতে রপ্তানী করে থাকে।

মিরপুর বেনারশী পল্লীতে স্থানীয় ভাবে মিরপুর বেনারশী পল্লী সমিতি গঠিত হয় নির্বাচনের মাধ্যমে। নির্ধারিত মালিক সমিতি মিরপুর বেনারশী পল্লীর সার্বিক তত্ত্বাবধায়নে তথ্য রক্ষনাবেক্ষনের দায়িত্বে আছেন।

মিরপুর বেনারশী পল্লীর নিরাপত্তা নিয়োজিত আছেন কয়েকজন আনসার ও দারোয়ান। এ ছাড়া স্থানীয় থানার পুলিশ সদস্যরা টহলরত অবস্থায় থাকেন। মিরপুর বেনারশী পল্লীটি এলাকাভিক্তিক হওয়ায় তেমন কোন নিরাপত্তা জনিত সমস্যা হয় না।

পুরো বেনারশী পল্লীতে প্রবেশের জন্য মিরপুর ১০ পল্লবী যেতে পর পর ৪টি গেট আছে। বেনারশী পল্লী মূলত একটি এলাকা। এখানে জনবসতি ও শোরুম দুটোই আছে। মোটামুটি জমজমাট অবস্থা। শোরুমগুলো একতলা, কিছু কিছু ২য় তলায়। গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য পর্যাপ্ত জায়গা শোরুমগুলোর সামনেই রয়েছে। প্রত্যেকটি শোরুমই শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ও নিজস্ব জেনারেটর ব্যবস্থা রয়েছে। এছাড়া বেনারশী পল্লীতে ব্র্যাক ব্যাংক ও ডাচ বাংলা ব্যাংকের বুথ রয়েছে।
Photo21

You must be logged in to post a comment Login

মন্তব্য করুন