আলাউদ্দিন রোডের হাজীর বিরিয়ানি

প্রকাশ: May 28, 2015
হাজীর বিরিয়ানী

১৯৩৯ সালে এক ডেকচি বিরিয়ানি নিয়ে হাজি মোহাম্মদ হোসেন বিরিয়ানির দোকান দিয়েছিলেন পুরনো ঢাকার কাজী আলাউদ্দিন রোডে । তারপর তাঁর ছেলে হাজি গোলাম হোসেন বাবার ব্যবসার হাল ধরেন। ধীরে ধীরে চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে হাজির বিরিয়ানির নামডাক। সেই হাজির বিরিয়ানি এখন পুরান ঢাকা, মতিঝিল বিমান অফিস ও বসুন্ধরায় আবাসিক এলাকায় তিনটি দোকান নিয়ে সাফল্যের সাথে ব্যবসা করে যাচ্ছে। এখানে শুধু কাচ্চি বিরিয়ানী বিক্রি হয়। হাজীর বিরিয়ানিতে বিরিয়ানি রান্নায় ঘি/বাটার অয়েল এর পরিবর্তে শুধু সরিষার তেলের ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এই দোকান/হোটেলের কোনো সাইন বোর্ড নেই-কিন্তু এক নামেই সকলে চেনে।

hajir biriyani

সকাল ৭ টা থেকে সকাল ৯ টা এবং সন্ধ্যা ৭ টা থেকে রাত সাড়ে নয় টা এই দুই সময়ই বিরিয়ানি পাওয়া যাবে আলাউদ্দিন রোডের এই ঐতিহ্যবাহী হাজীর বিরিয়ানির দোকানে। তবে যত চাহিদাই থাকুক-সকালে ২ ডেকচি ও বিকেলে ৩ ডেকচির বেশি বিক্রি করা হয় না। তবে ইদানীং কালে এখান থেকে রান্না করা খাবার নিয়ে মতিঝিল এবং গুলশানে দুটি ব্রাঞ্চ পরিচালিত হচ্ছে-যা শুধু দুপুরেই পাওয়া যায়। আলাউদ্দিন রোডের মেইন দোকান থেকে বিরিয়ানি কিনে বাসায় নিতে চাইলে তা নিতে হবে ওদের বানানো “কাঠাল পাতার” পার্সেল প্যাকেট করে। প্রসংগক্রমে হাজী বিরিয়ানি হাউসের বর্তমান মালিক মোহাম্মদ সাহেদ জানিয়েছিলেন, বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অর্ডার নেয়া হয় তবে সেই ক্ষেত্রে ২/১ দিন আগে জানাতে হয়।

You must be logged in to post a comment Login

মন্তব্য করুন