৩ বছরের মধ্যে ঢাকাকে গ্রিন ঢাকা করা হবে

প্রকাশ: May 11, 2015
aanid

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়রদের সংবর্ধনা দিলো ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ চেম্বার্স অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাষ্ট্রি (এফবিসিসিআই)। সোমবার রাজধানীর কাকরাইল আইডিইবি ভবনে ঢাকা উওর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র আনিসুল হক এবং সাঈদ খোকনকে এ সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন নতুন দুই মেয়রের কাছে দাবি জানিয়ে বলেন, রাজধানীর ফুটপাত থেকে হকার মুক্ত করতে হবে। একই সঙ্গে হকাদের জন্য হলিডে মার্কেটসহ তাদের পুর্নবাসন করতে হবে। যানজট নিরসনের পাশাপাশি নর্দমা পরিস্কারসহ মশা মুক্ত ঢাকা চাই।

তিনি বলেন, নির্বাচিত মেয়ররা তাদের ইস্তেহারে যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তা যদি বাস্তবায়ন করেন তাহলে নগরবাসীর জীবনের সমস্যা থাকবে না।
বাংলাদেশ উইমেনস চেম্বারের সভাপতি সেলিমা আহমেদ বলেন, চাঁদাবাজি বন্ধ করতে হবে। পুলিশ ও সন্ত্রাসের নির্যাতন বন্ধ করতে হবে।

ব্যবসায়ীদের জন্য একটি হেল্প ডেক্স চালু করতে হবে। যেন ব্যবসায়ীরা কোনো সমস্যায় পরলে ফোন করে সাহায্য নিতে পারে। একই সঙ্গে ট্রেড লাইসেন্স ফি কমানোর দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, আগের ৫০০ টাকার ফি এখন পাঁচ হাজার টাকা করা হয়েছে। যা সম্পূর্ণ অযোক্তিক।
অনুষ্ঠানে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে আলাদা হেল্পডেস্ক চালুর দাবি প্রসঙ্গে সাঈদ খোকন বলেন, ‘শুধু ব্যবসায়ী নয়, সর্বস্তরের মানুষের জন্য হেল্পডেস্ক চালুর ব্যবস্থা করা হবে।’

ঢাকা দক্ষিণে অর্থের সঙ্কট আছে উল্লেখ করে ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারা সময়মতো ট্যাক্স দেন। আপনারা টাকা না দিলে আমরা কাজ কীভাবে করবো?’ তিনি আরও বলেন, ‘ট্রেড লাইসেন্সের ফি ৫০০ টাকা থেকে এক লাফে ৫ হাজার টাকা হলে তা অযৌক্তিক হয়েছে। এ বিষয়টি আমরা ভেবে দেখবো।’

পরে আনিসুল হক তার বক্তব্যে সাঈদ খোকনের কথায় সমর্থন জানান। তিনি বলেন, ‘আমি ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদের সাথে পুরোপুরি একমত। কর্পোরেশনকে যেভাবে হোক স্বাবলম্বী করতে হবে। এজন্য ব্যবসায়ীদের এগিয়ে আসতে হবে।’

আনিসুল বলেন, ‘আগামী দুই বছরের মধ্যে ঢাকার বর্জ্যে সমস্যার সমাধান করা হবে। ৩ বছরের মধ্যে ঢাকাকে গ্রিন ঢাকা করা হবে।’

এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দিন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন এফবিসিসিআইয়ের সহ-সভাপতি হেলাল উদ্দিন, এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক এম এ মোমেম ও আবু আলম চৌধুরী প্রমুখ।

You must be logged in to post a comment Login

মন্তব্য করুন