তারুণ্যের স্মার্ট ঢাকা

প্রকাশ: April 22, 2015
Tarun

আমরা ঢাকা ডটকম:

দেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৪৫ শতাংশ তরুণ। আর ঢাকার মোট জনসংখ্যার প্রায় ৩২ শতাংশ নতুন ভোটার। এই তরুণদের আলাদা ধর্ম আছে। তারা তাদের মতো করে থাকতে চায়, বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে চায়, নির্মল আড্ডার জায়গা চায়, নিজেদের কথা সবাইকে জানাতে চায়। বিশ্বকে নিজেদের মতো করে দেখতে ও দেখাতে চায়। নিজেদের তারা একটি স্মার্ট শহরের অধিবাসী হিসেবে দেখতে পছন্দ করে।

আমরা যা করতে চাই:
আধুনিক স্থাপত্যকলা ও নান্দনিকতার মিশেলে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের নিজস্ব পরিবশেবান্ধব বা সবজু ভবন নির্মাণ করা হবে। যা হবে ঢাকা উত্তরের নাগরিকদের ইতিহাস, ঐতিহ্য, গৌরব ও চেতনার প্রতীক।

নগরীর ভেতরে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ এলাকা, বাস ষ্টপেজ, নারীদের জন্য বিশেষ বাসে বিনামূল্যে ওয়াই ফাইয়ের ব্যবস্থা করা হবে।

সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে একটি ই-লাইব্রেরির প্রতিষ্ঠা করা হবে।

নাগরিক সমস্যা জানানো, সেবা সুবিধা এবং প্রয়োজনীয় তথ্য-সমৃদ্ধ মোবাইল অ্যাপ চালু করা হবে।

সকল সেবাসমূহকে পর্যায়ক্রমে ডিজিটাল করা হবে এবং ই-সেবা চালু করা হবে।

শহরের ভেতরের লেকগুলোকে (গুলশান-হাতিরঝিল) বিনোদন কেন্দ্রে পরিণত করা হবে। লেকের দুই পাড় ঘিরে বিদেশের মতো ফুডকোর্ট ও ওয়াকিং ওয়ে করা হবে। পার্ক ও লেকগুলোতে আলোকসজ্জা করা হবে।

যত্রতত্র পার্কিং নিষিদ্ধ করা হবে এবং পুরো ব্যবস্থাকে শৃংখলার মধ্যে আনা হবে। ডিজিটাল পার্কিংয়ের ব্যবস্থা করা হবে। অ-গুরুত্বপূর্ণ সড়কগুলোয় ইজারার ভিত্তিতে লেনভিত্তিক গাড়ি পার্কিংয়ের উদ্যোগ নেয়া হবে।

ডিজিটাল নগর বুলেটিন বোর্ড করা হবে। যেখানে প্রতিনিয়ত ব্রেকিং নিউজ, শহরের গুরুত্বপূর্ণ ভিডিও, কর্পোরেশনের যাবতীয় তথ্য দেখানো হবে।

মোবাইল লাইব্রেরির ব্যবস্থা করা হবে। প্রতিটি কমিউনিটি সেন্টারের সঙ্গে আধুনিক লাইব্রেরি গড়ে তোলা হবে।

নগরীর মানচিত্র বা সিটি ম্যাপ করা হবে। শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বড় বড় মানচিত্র টানানো হবে। পাশাপাশি পর্যটকদের জন্য আলাদা গাইড ম্যাপ বা নেভিগেশন ম্যাপ করা হবে।

নাগরিকদের মনোনীত ৩৬ ওয়ার্ডের ৭২ জন সুনাগরিককে প্রতিবছর পুরস্কৃত করা হবে।

নগরীর দর্শনীয় স্থান, এলাকাসমূহ বা ‘উত্তর ঢাকা’কে আলোকিত নগরীতে পরিণত করা হবে।

পর্যায়ক্রমে সব নাগরিককে ‘নাগরিক স্মার্ট কার্ড’ দেয়া হবে। নাগরিকরা কার্ডের মাধ্যমে মাসিক, বাৎসরিক ট্রেন-বাসের টিকেট ক্রয় করতে পারবে, সব ধরনের বিল পরিশোধ করতে পারবে। পাসপোর্ট, সনদ গ্রহন সহ বিভিন্ন কাজে স্মার্ট কার্ডকে উৎসাহিত করা হবে।

তরুনদের জন্য আধুনিক স্বাস্থ্য ও ক্রীড়াকেন্দ্র নির্মাণ করা হবে।

You must be logged in to post a comment Login

মন্তব্য করুন