কলাবাগানের ব্র্যান্ড মামা হালিম

প্রকাশ: May 24, 2015
mama halim

ঢাকার কলাবাগানের ঐতিহ্যবাহী মামা হালিমের কদর ঢাকাবাসীর কাছে সারা বছর জুড়েই। কুমিল্লা জেলার লাকসামের দিল মোহাম্মদ মনু এই বিখ্যাত খাবারটি প্রচলন করেন। স্বাধীনতার আগে মোহাম্মদপুরের বিআরটিসি বাস কাউন্টারের পাশে এক বিহারির হোটেলে কাজ করতেন তিনি। এই হোটেলে তাঁর ওস্তাদ কালা,ধলার কাছেই তিনি শিখেছেন সুস্বাদু হালিম তৈরির কলাকৌশল। প্রায় ২৫ বছর আগে দিল মোহাম্মদ মনু ঢাকায় এসে কলাবাগানে হালিম বিক্রি শুরু করেন। খুব অল্প দিনের মধ্যেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে তার হালিম। সে সময় দোকানে জায়গা না পেয়ে বাইরে প্রচুর মানুষ দাঁড়িয়ে হালিম খেত। ব্যবসার সুবাদে মনু মামা নামেই সবার কাছে পরিচিত। এবং এ কারণেই তাঁর দোকানের হালিম মামা হালিম নাম পায়। সম্প্রতি উন্নয়ন কাজের জন্য কলাবাগানের মামা হালিমের দোকানটি ভেঙ্গে ফেলা হয়। তবুও থেমে নেই এর বিক্রি! দোকানের বাইরে চেয়ার-টেবিল, বেঞ্চ পেতে বসতে দেয়া হচ্ছে ক্রেতাদের। রয়েছে পার্সেলের ব্যবস্থাও।

mamahalim 1

মামা হালিম তৈরির মূল উপাদান হলো বিভিন্ন রকমের ডাল, গম ও মাংস। গরু, খাসি ও মুরগি তিন ধরনের মাংসের হালিম পাওয়া যায় এখানে। সঙ্গে ব্যবহার করা হয় নানা রকম মসলা। হালিমে ডাল-মসলার সঠিক অনুপাতই এর মজাদার স্বাদের মূল রহস্য। তবে হালিমের রেসিপি কোনোভাবেই প্রকাশ করতে রাজি নন মনু মামা। হালিমের স্বাদ বাড়াতে এর ওপর দেয়া হয় সালাদ, টক ও ভাজা পেঁয়াজ।

mama halim 2

রাজধানীর কলাবাগান ছাড়াও ধানমন্ডি ৪ নম্বরে রয়েছে মামা হালিমের আরো একটি শাখা। কেউ পার্সেল করে নিয়ে যেতে চাইলে সে ব্যবস্থাও রয়েছে। বিভিন্ন সাইজের মাটির পাত্রে পার্সেল করে দেয়া হয় হালিম। পাত্রের আকার ও হালিমের পরিমাণ অনুযায়ী ঠিক করা হয়েছে এর মূল্য। ১২০০ টাকা, ৭০০ টাকা, ৬০০ টাকা, ৫০০ টাকা, ৪০০ টাকা, ৩০০ টাকা, ১২০ টাকা ও ৮০ টাকা মূল্যের পার্সেলের ব্যবস্থা রয়েছে। দুপুর ২ টা থেকে হালিম বিক্রি শুরু হয়। রয়েছে হোম ডেলিভারির ব্যবস্থাও। ফোন নম্বর : ০১৬৮৪৯৯৯৬০৮।

You must be logged in to post a comment Login

মন্তব্য করুন